principal
ইঞ্জিঃ নীহার রঞ্জন দাস
অধ্যক্ষ

গ্রাফিক আর্টস ইনস্টিটিউট ১৯৬৭ সালে রাজধানী Dhaka তে প্রতিষ্ঠিত একটি মাত্র সরকারী মুদ্রণ ও গ্রাফিক ডিজাইন ইনস্টিটিউট, এটি আমাদের মুদ্রণ ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং নামে চার বছরের মেয়াদী প্রযুক্তিগত কোর্স প্রদান করে। পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর জনাব আজম খান এবং তৎকালীন কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডঃ ওয়াকার আহমেদ প্রধান উদ্যোগী ছিলেন। ডাঃ আর কে মোল্লা গ্রাফিক আর্ট ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ (১৯৬৭-১৯৭২) হিসাবে নিয়োগ পেয়েছিলেন। মুদ্রণ প্রযুক্তির উচ্চ প্রশিক্ষণের জন্য তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ডাকোটা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছিল। কেন্দ্রীয় সরকার প্রিন্টিং প্রেসে ইনস্টিটিউটের অন্যান্য প্রশিক্ষকদেরও প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল। ইনস্টিটিউট 25 টি আসন দিয়ে শুরু হয়েছিল।

তবে বর্তমানে এই ইনস্টিটিউটে দুটি শিফটে (সকাল ও সন্ধ্যা) শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। গ্রাফিক ডিজাইন, মুদ্রণ প্রযুক্তি এবং কম্পিউটার প্রযুক্তি হিসাবে তিনটি বিভাগ রয়েছে। প্রতি বছর এই ইনস্টিটিউটে প্রায় ৪০০ শিক্ষার্থী ভর্তি হন।

বর্তমানে গ্রাফিক আর্টস ইনস্টিটিউট একটি সম্পূর্ণ মিডিয়া ভিত্তিক ইনস্টিটিউটে পরিণত হয়েছে, যা বিভিন্ন ধরণের মুদ্রণ যন্ত্র এবং মেশিনারি যেমন অস্থাবর প্রকার, লেটার প্রেস, গ্যালারী টাইপ এবং ডিজিটাল ক্যামেরা, অফসেট মেশিন, গ্র্যাভর প্রিন্টিং মেশিন, স্ক্রিন প্রিন্টিং মেশিন ( ৮ টি রঙ), ইউভি ড্রায়ার, আঠালো বাঁধাই মেশিন, ফোল্ডিং মেশিন, হাইড্রোলিক কাটিং মেশিন, সিটিপি, অটো প্লেট প্রসেসর, লিথো ফিল্ম, প্যানক্রোমেটিক ফিল্ম ইত্যাদি দেশের অন্যান্য মুদ্রণ প্রেসগুলির পাশাপাশি আধুনিক মুদ্রণ প্রযুক্তির সাথে মোকাবিলা করার জন্য বিশ্ব, কম্পিউটার গ্রাফিক কোর্সটি 1995-96 সেশন থেকে শুরু হওয়া নতুন পাঠ্যক্রমের সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে। ইনস্টিটিউটে অ্যাপল ম্যাকিনটোস এবং আইবিএম উভয় কম্পিউটারের সাথে ইমেজ সেটার, ড্রাম স্ক্যানার, লেজার প্রিন্টার, ইঙ্কজেট প্রিন্টার ইত্যাদি পাওয়া যায়।

এটিতে প্রযুক্তিগতভাবে বিশেষজ্ঞের শিক্ষক রয়েছেন যারা আমাদের আত্মবিশ্বাস। এটিতে একটি তিন তলা বিল্ডিং, একটি একাডেমিক বিল্ডিং, একটি মিলনায়তন, বড় সাইজের ওয়ার্কশপ, ডিজিটাল ফটোগ্রাফি ল্যাব, স্ক্রিন প্রিন্টিং ল্যাব, সায়েন্স ল্যাব, ইনডোর গেমরুম, কমন রুম, সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার, রিডিং রুম, ডিজাইনের ল্যাব, ডিটিপি ল্যাব ইত্যাদি রয়েছে। একটি নিঃশব্দ অঞ্চলে আবাসন ব্যবস্থাপনারও নিজস্ব মালিকানা রয়েছে।

১৯৬৭ সাল থেকে ইনস্টিটিউট প্রিন্টিং প্রযুক্তিতে তিন বছরের ডিপ্লোমা (ছয়টি সেমিস্টার সহ) ডিগ্রি অনুমোদন করে, সাধারণত প্রযুক্তিগত শিক্ষা বোর্ডের অফারগুলি। তবে কোর্সটি চার বছরের ডিপ্লোমা (আটটি সেমিস্টার) দিয়ে অধিবেশন (২০০১-২০০২) থেকে পুনরায় সাজানো হয়েছে।

ইনস্টিটিউটে 18 জন শিক্ষক (পুরুষ 14 মহিলা 4) এবং একাডেমিক স্টাফ 29 (পুরুষ 22 মহিলা 7) নিয়ে গঠিত। এই মুহুর্তে এটি ৪০০ জন ছাত্রকে সংশ্লেষ করতে পারে যার মধ্যে 10% মহিলাদের এবং 5% উপজাতির জন্য সংরক্ষিত রয়েছে।

আরো পড়ুন
section-title

চলমান বিভাগ সমূহ

কম্পিউটার টেকনোলজি

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

বিস্তারিত

প্রিন্টিং টেকনোলজি

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

বিস্তারিত

গ্রাফিক ডিজাইন

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

বিস্তারিত

কেন তুমি গ্রাফিক আর্টস বেছে নিবে?

বাংলাদেশে মুদ্রণ ও গ্রাফিক ডিজাইন প্রযুক্তি শিক্ষার একমাত্র সরকারি প্রতিষ্ঠান আমাদের গ্রাফিক আর্টস ইনস্টিটিউট। ১৯৬৭ সালে রাজধানী ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি সময়পরিক্রমায় একটি পূর্ণাঙ্গ মুদ্রণ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। আধুনিক বিশ্বের মুদ্রণ শিল্প ব্যবস্থার সাথে তাল মিলিয়ে বর্তমানে এতে গ্রাফিক ডিজাইন ও কম্পিউটার এই দুটি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। মৌলিক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করে একজন শিক্ষার্থী কম্পিউটার গ্রাফিক্স, সফটওয়ার ডেভেলপমেন্ট কিংবা মুদ্রণ শিল্প প্রতিষ্ঠানে সুযোগ্য পেশা নির্বাচন করতে পারবে।

section-title

বিভাগীয় প্রধানগণ

teacher

প্রকৌ. নীহার রঞ্জন দাস

বিভাগীয় প্রধান

(কম্পিউটার টেকনোলজি)

teacher

মোফাখারুল ইসলাম

বিভাগীয় প্রধান

(প্রিন্টিং টেকনোলজি)

teacher

গোলাম মোস্তফা

বিভাগীয় প্রধান

(গ্রাফিক ডিজাইন)

section-title

আসন্ন ইভেন্টসমূহ